আওয়ামীলিগের জগাখিচুরি ধর্মিয় বিশ্বাস



ধর্মীয় দিক থেকে মুগল সম্রাট আকবর আর আমাদের শেখ হাসিনার সাথে একটা দারুন মিল আছে।
সম্রাট আকবর সাহেব ক্ষমতা থাকা কালিন সময়ে সব ধর্মকে একত্র করে একটা নতুন ধর্ম বানানোর চেষ্টা করেছিলেন যার নাম ছিল দ্বীনে-এলাহী।কিন্তু তখনকার সময়ের তৌহিদি জনতা মুজাদ্দেদ আল-ফেহছানির(রঃ)নেতৃত্বে এই শয়তানি ধর্মকে বিনাশ করেছিল এবং যুগ শ্রেষ্ট আলেমে দ্বীন মুজাদ্দেদ আল-ফেহছানি(রঃ)অনেক নির্যাতন সইতে হয়েছিল।তবুও তিনি ক্ষমতার কাছে মাথানত করেন্নাই
আজকে আমাদের শেখ হাসিনা ও তার নেতারা
দেখেন কি করছে!
১।তিনি(শেখ হাসিনা)নামায পড়েন আর মদিনা সনদের আলোকে দেশ পরিচালনা করার কথা বলেন।
২।আবার(শেখ হাসিনা)হিন্দুদের অনুষ্ঠানে গিয়ে বলে মা দুর্গা গজে চড়ে আসার কারনে নাকি দেশে ভাল ফলন হইছে।
৩।মি মাল(অর্থ মন্ত্রী)সাহেব হিন্দুদের মন্দির উদ্ভোধন করে আল্লাহর কাছে এর সাফল্যের জন্য দোয়া করেন।
৪।উনি(শেখ হাসিনা)বৌদ্ধদের অনুষ্ঠানে গিয়ে বলেন গৌতম বুদ্ধের আদর্শে দেশ এগিয়ে নেয়ার কথা।
৫।উনি(শেখ হাসিনা)উনার পিতার মৃত্যু বার্ষিকিতে সর্ব-ধর্মীয় প্রার্থনা সভা করান উনার পিতার মাগফেরাতের জন্য।কারন উনার এক আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস নাই তাই সব ধর্মের লোকদের দিয়ে দোয়া করাইছেন এই নীতিতে বলা যায় না কারটা না কারটা যদি লাইগ্যা যায়।
৬।নৌ মন্ত্রী বলেন শেখ মুজিব নাকি মদ আর জুয়া হারাম করছে এই দেশে।
৭।প্রভাবশালী স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন উনি নাকি মুসলমানও না আবার হিন্দুও না উনিই ভাল জানেন আসলে উনি কি?
৮।উনার জঙ্গল মন্ত্রী বলেন মেয়েদের পর্দা থেকে মুক্ত করতে নাচ শেখাইতে হবে।
৯।উনার(শেখ হাসিনা)স-যুইগ্য পুত্র বলেন সেনা বাহিনী হইতে নাকি ইসলাম পন্থীদের বের করতে হবে।
এই রকম আরো অনেক মন্তব্য যা একটি হযবরল ধর্মীয় বিশ্বাসের ইঙ্গিতই বহন করে।
তবে উনাদের কথা ও কাজেও কিন্তু মিল আছে যেমনঃ-
১।আমাদের জাতির নাতী জয় সাহেবের স্ত্রী একজন খ্রীষ্টান।
২।সোহেল তাজের স্ত্রীও তাই ইহুদি/খ্রীষ্টান।
৩।আওয়ামীলিগের সেক্রেটারি ও স্থানিয় মন্ত্রী সাহেবের স্ত্রী হিন্দু।
এই রকম আরো আছে,এখন বুঝেন অবস্থা।কারন আপনি যদি এক আল্লাহকে বিশ্বাস করেন তবে অন্য ধর্মের রীতিনীতিকে বা অন্য ধর্মের ধর্মিয় বিশ্বাসকে আপনি মানতে পারেন্না আর যদি আপনি মানেন তবে আপনি অবশ্যই মুসলমান থাকেন্না এখন যারা আওয়ামীলিগ করেন আপনারা একটু চিন্তা করে দেখবেন আমার কথা গুলু বাস্তব সম্মত কিনা এবং আপনারা নিজেদের মুসলমান পরিচয়ে দাবি করতে পারেন কিনা।
তাই আমার মনে হয় আওয়ামীলিগই একটি ধর্মিয় রীতি আবিষ্কার করেছে আকবরের দ্বীনে এলাহীর মতন।একদিতে মুসলমান অন্যদিকে আওয়ামীলিগ(যা একটি নতুন জগাখিচুরি ধর্ম বিশ্বাস আবিষ্কার করেছে) আর তার বিরুদ্ধে আল্লামা শফী(রঃ) সাহেবের নেতৃত্বে আজ সকল তৌহিদি জনতা ঐক্য বদ্ধ এই নব্য শয়তানি ধর্ম বিশ্বাসকে খতম করে এই দেশে ইসালামী আকীদা প্রতিষ্ঠিত করতে ইনশাল্লাহ।
অবশ্যই আল্লাহ ইমানদার মুসলমানদের সাথে আছেন এবং থাকবেন।
Related Posts Plugin for WordPress, Blogger...